তোমায় পাবোনা বলে

তোমায় পাবো না বলে,
কত শত রজনী জেগেছি নির্ঘুম খালি পায়ে
রাত জাগা ভুতুম পেঁচার বেশে
করুণ সুরে নগরী পাহাড়ায় মেতেছি একলা রাতে।
তোমায় পাবো না বলে,
সাহারা কিংবা শ্বেত মরুভূমির উত্তপ্ত খরতাপে,
জ্বলসে দিয়েছি দেহ মন একাকার করে
মরুদ্যানে হামাগুড়ি দিয়ে দিয়ে
ক্ষত-বিক্ষত আমি তপ্ত ধূলিতে করেছি স্নান।
তোমায় পাবো না বলে,
সুকাত্রা দ্বীপ এ বনবাস নিয়েছি আজ কত বছর
ধরিত্রী থেকে বিচ্ছিন্ন আমি,
বিচ্ছিন্ন চেনা গলি, চেনা মানুষ!
কেঁদে কেঁদে ঝড় তুলেছি নিস্তব্দতায়
চোখের নোনা জলে ভেসেছে হৃদয়
হার মেনেছে ডনজুয়ান এর বিষাক্ত লবনাক্ত হ্রদও।
তোমায় পাবো না বলে,
কলা গাছের ভেলায় ভাসিয়েছি সুখ নীল নদে
নায়েগ্রার জলপ্রপাত ও বড় কুৎসিত লাগে!
তোমায় পাবো না বলে,
আঁধার কোলে জুলন্ত আকাশের ওই চাঁদটিও
জ্বলসে যাওয়া পোড়া রুটির মত লাগে।
তোমায় পাবো না বলে,
আর্থারিয়ান মহিয়সী গুইনেভারার প্রেম ও নিষিদ্ধ লাগে
যুগ যুগ ধরে অসম প্রেম জিইয়ে রাখা,
নেপোলিয়ান, জোসেপাইনের আত্মত্যাগ ও নিরর্থক লাগে!
গ্রীক মিথ এর সেরা প্রেমিক যুগল,
ওডিসিয়াস আর পেনেলোপ এর,
বিশ বছরের দীর্ঘ প্রতিক্ষাও অসহ্য লাগে।
তোমায় পাবোনা বলে,
বিশ্বমন্ডল ও নড়বড়ে লাগে
তোমায় পাবো না বলে,
বেঁচে থাকাও বড় স্বার্থপর লাগে।