রহিমা খালা

 

rohima khala
ওই পাড়ার ওই রহিমা খালা
 কুঁড়ের ঘরে তার বাস,
 একটু খানি বৃষ্টি হলেই
 করে হা-হুতাস!
 
বৃদ্ধ খালা কাজ করে
 শিল্পপতির বাড়ি,
 বিত্তশালী মানুষ ওরা
 দামী বাড়ী গাড়ী!
 দুই ছেলে তার বিয়ে করে
 বউ নিয়ে গেছে দূরে,
 অসুস্থ শরীরে খালা এখন
অন্যের বাড়ি কাজ করে!
 
জ্বরের ঘোরে থরথরিয়ে
 ভাঙ্গা বেড়া ধরে হাঁটে,
 কেউ নাই আজ চারকূলে
 চোখের জলে রাত কাটে!
 
সারা দিনের কর্ম শেষে
 শূন্য ঘরে ফেরা,
 স্মৃতির ফাঁকে ছেলেদের খুঁজে
 দু’নয়ন জলে ভরা!
 
বৃদ্ধ খালার চোখের জ্যোতি
 ঝাপসা হয়ে আসে,
শূন্য ঘরে মুখটি চেপে
খুকখুকিয়ে কাশে!
 
রাত পার হয় চোখের জলে
 দিনের আলো ফুটে,
 বাঁচার সংগ্রামে পোটলাটি হাতে
 রহিমা খলা ছুটে!
 
আমরণ তার সংগ্রাম যেন
 দুঃখ দিয়ে লেখা,
রহিমা খলার দীর্ঘশ্বাসে
 আমার অনেক কিছু শেখা।