কেউ কথা রাখেনি

kotha rakhe ni

 

বয়স তখন বারো কি তেরো!
অংকের স্যার একদিন ইতস্তত হয়ে একদিন বলেছিলেন,
রুপকথা, তুই খুব মেধাবী!
তুই বড় হ, তোকে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন!
কালি পূজোয় নাড়ু খেতে গিয়ে
বড় বাড়ির সুকুমারদা’র চোখে চোখ;
কি যে এক অনুভূতি!
দা’ বলেছিল, রুপ সন্ধ্যাকালে একবার এদিকটায় আসিস;
একটা কথা ছিল!
মেঝদা’র বন্ধু বলত, রুপ, আমায় বিয়ে করবি?
ভেন্নু বলত, রুপ, তোর মত বন্ধু হয় না রে!
আজীবন পাশে থাকবি তো?
শুভদা বলতো,
রুপ…….এত প্রেম আসে কোথা হতে?
তারপর দিন গেল, মাস গেল, বছর গেল
স্যার চলে গেলেন, সুকুমারদা এদিকটায় আর এলেন না।
মেঝদা’র বন্ধু বউ নিয়ে বিদেশ গেলেন, ভেন্নুকে আর দেখা গেলনা!
কেউ কথা রাখেনি!
বাস্তবতার কঠিন জোয়ারে ভেসে গেছে সব, ভেসে গেছে সময়
শুধু খণ্ড স্মৃতিগুলো মাঝে মাঝে উঁকি দেয় মনের ক্যানভাসে
কচুরিপানার মত ভেসে বেড়ায় সময়ের ঢেউয়ে
কেউ কথা রাখেনি!