চিরগমন

দূরে গেলেই যদি তোমার সুখ হয়,
যদি দূরে গেলেই ব্যথা উপশম হয়
তবে না হয় দূরেই গেলাম চলে।
দূরে গেলেই যদি আকাশটা শান্ত হয়,
যদি দূরে গেলেই ধরনী কোমল রয়
তবে না হয় তোমায় গেলাম ভুলে।
বদলে যাওয়া যদি তোমার নতুন পথের সূচনা হয়,
যদি আমার ছাঁয়া তোমার পথের অন্তরায় হয়
তবে না হয় লুকালাম গোধূলি বেলায় রক্তিম আভায়।
মন বিষাদে পুড়িয়ে দিলাম আমার সব আনন্দ
সরিয়ে নিলাম নির্জনে গোপনে বোনা সব স্বপ্ন
বহুদিন ধরে দিবারাতি যা এখনো আমায় কাঁদায়।
দূরে গেলেই যদি ভালো থাকো,
তবে গেলাম দূরে, বহু দূরে, তোমার মায়া ছেড়ে
কষ্ট যত বাহুডুরে উড়ে নিয়ে যাক প্রাণ কেড়ে
সুপ্ত লয়ে মনের কোণে হোক তম বিষাদ
ভালো থাকুক সকাল বিকাল, বিনিদ্র সব রাত।
থাক না আমার সন্ধ্যা বাতি আধো আলো আধো নিভি
যাক না জ্বলে একলা রাতি, চোখের কোণে কাজলা দিদি।
দিন হয়ে যাক আঁধার কালো, বুকের পাঁজর ভেঙে গুড়ো
শ্মশান ঘাটে লাশ হয়ে যাই; হোক তবু তোমার স্বপ্ন পুরো।
দূরে গেলেই যদি সুখে থাকো,
তবে নিলেম তুলে অনাধীকার যত চরা দামে দিয়েছিলে কিনে
গেলাম ভুলে আনন্দ যত ছিল তোমার আমার এক সনে।
দূরে গেলেই যদি তুমি সুখী হও,না হয় গেলাম সরে!
রাতের তারা পড়ুক ঝরে মন খারাপের উঠোনে
একটা নদী একলা থাকুক, তোমার আমার বিহনে।
যাক ধুয়ে আজ ব্যথা যত অশ্রুজলে ভেসে
দূরেই থাকি তবু যদি, বসুমতি উঠে হেসে।
ধুলো পথে একলা ঘুরে দু:খ নিলেম কিনে
খুঁজি উপায় বেঁচে থাকার, তোমার বিহনে!
দূরে গেলেই যদি ভাল থাকো তবে,
না হয় গেলাম সরে।